ভ্রমণ কন্যা কাজী আসমা অসুস্থ, দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন

ভ্রমণ কন্যা কাজী আসমা
সর্বমোট পঠিত : 95 বার
জুম ইন জুম আউট পরে পড়ুন প্রিন্ট

ফিলিপাইন থেকে মঙ্গোলিয়া, রাশিয়া, কানাডা, বেলারুশ, জর্জিয়া, আজারবাইজান, কাজাখস্তান, কিরগিজস্তান, উজবেকিস্তান হয়ে তুর্কমেনিস্তান পৌঁছে শত দেশ ভ্রমণের মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলেন তিনি।

ভ্রমণ কন্যা কাজী আসমা আজমেরী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি। ভারতে ভ্রমণে যাওয়ার পর সম্প্রতি হঠাৎ পেটের পীড়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েন কাজী আসমা আজমেরী। পরে স্থানীয়  হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে কিছুটা সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন। নিজের সুস্থতার জন্য আত্মীয়-স্বজন, শুভাকাঙ্ক্ষী ও দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি।

কাজী আসমা আজমেরী প্রথম বাংলাদেশি, যিনি বাংলাদেশি পাসপোর্টে ১১৫টি দেশ ভ্রমণ করেছেন। ২০০৯ সালে বন্ধুর মায়ের বিদ্রুপ ‘মেয়েরা বিশ্বভ্রমণ করতে পারে না’ শুনে তার মনে একধরনের জেদ জন্ম নেয়। সেই থেকে তিনি বিশ্বভ্রমণে বেরিয়ে পড়েন নিজের গহনা বিক্রি করে। তারপর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি।

ফিলিপাইন থেকে মঙ্গোলিয়া, রাশিয়া, কানাডা, বেলারুশ, জর্জিয়া, আজারবাইজান, কাজাখস্তান, কিরগিজস্তান, উজবেকিস্তান হয়ে তুর্কমেনিস্তান পৌঁছে শত দেশ ভ্রমণের মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলেন তিনি।

পুরোদস্তুর পর্যটকজীবনের শুরু ২০০৯ সালে। সে বছর দক্ষিণ এশিয়ার ভারত, নেপাল, ভুটানসহ সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়ায় পা রাখেন। ২০১০ সালে ঘোরেন মিসর, মরক্কো, তুরস্ক, চীন, ফ্রান্স, ব্রুনেই, বেলজিয়ামসহ ১১টি দেশ। এভাবেই শুরু। সর্বশেষ ২০১৭ সালে গেছেন কিউবায়। সবচেয়ে বেশি দেশ ভ্রমণ করেছেন ২০১৬ সালে। সেবার ঘুরে বেড়িয়েছেন আরব ও ইউরোপের ১৯টি দেশ।
আসমা সব দেশেই ঘুরেছেন বাংলাদেশের পাসপোর্ট নিয়ে।

মন্তব্য

আরও দেখুন

জামালপুর লাইভ টিভি