বিহারে নিতীশেই আস্থা, চতুর্থবারের মতো মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন

মোট দেখেছে : 33
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

নিউজ ডেস্কঃ টানা চতুর্থবার মতো ভারতের বিহার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন জনতা দল ইউনাইটেডের (জেডি-ইউ) নেতা নিতীশ কুমার। নবনির্বাচিত বিধায়কদের সঙ্গে আলোচনার পর গতকাল রোববার এই তথ্য জানিয়েছে বিজেপির নেতৃত্বাধীন জাতীয় গণতান্ত্রিক জোট (এনডিএ)।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়, এবারের বিধানসভা নির্বাচনে আশানুরূপ ফল পায়নি এনডিএর জোটসঙ্গী জেডি-ইউ। ২০১৫ সালের নির্বাচনে দলটি ৭১টি আসন পেয়েছিল। এবার তা থেকে কমে এসে দাঁড়ায় ৪৩-এ। একক দল হিসেবে বিজেপি সবচেয়ে বেশি ৭৪টি আসনে ‘অপ্রত্যাশিত’ জয় পেয়েছে। আর জোটসঙ্গী জেডি-ইউর অবস্থান তৃতীয়। সব মিলিয়ে জোটটি ২৪৩ আসনের বিধানসভা নির্বাচনে সরকার গঠনের জন্য প্রয়োজনীয় ১২২টির চেয়ে তিনটি আসন বেশি পেয়েছে।


নিতীশের দলের ভোটে খারাপ ফল এবং তাঁকে চতুর্থবার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত করার বিরোধিতা করেন এনডিএ জোটের অনেকেই। ফলে খবর চাউর হয়, নিতীশের পরিবর্তে বিহার নতুন কোনো মুখ্যমন্ত্রী পেতে যাচ্ছে।  কিন্তু গতকালের বৈঠকের পর নিশ্চিত হয়ে যায়, নিতীশ কুমারের হাতেই থাকছে বিহারের ক্ষমতার চাবি। গতকাল এনডিএ জোট থেকে নির্বাচিত বিধায়কদের বৈঠকের পর নিতীশ কুমার সাংবাদিকদের বলেন, ‘শপথ অনুষ্ঠান আগামীকাল (আজ সোমবার) বিকেলে অনুষ্ঠিত হবে। এনডিএর এই সিদ্ধান্ত রাজ্যপালকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। বিধায়কদের সমর্থনের চিঠিও জমা দিয়েছি আমরা। শপথ গ্রহণের পর মন্ত্রিসভা সিদ্ধান্ত নেবে, কখন বিধানসভার অধিবেশন ডাকা হবে।’ দ্রুত সরকার গঠনের কথা জানিয়ে তিনি আরও বলেন, এখানে আরও উন্নয়নের জন্য বিহারের জনগণ এই সুযোগ (সরকার গঠন) দিয়েছে। এই বিষয়ে ঢিলেমি করা উচিত নয়।


এর আগে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দেওয়া লকডাউনে বিভিন্ন শহরে আটকে পড়া বিহারের শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনা নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়ে নিতীশ কুমারের সরকার। এ ছাড়া বিহারে দুর্নীতির বিস্তার নিয়েও প্রশ্ন ওঠে। এসব কারণেই এবারের নির্বাচনে নিতীশের দলের ফল খারাপ হয়েছে। এ কারণেই এনডিএ জোটের একাংশ নিতীশকে না চাইলেও বিজেপি রাজনীতির নানা হিসাব-নিকাশ কষে তাঁকেই মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে রেখে দেওয়ার ঘোষণা দেয়।

সূত্রঃ প্রথম আলো

আরো দেখুন

সাম্প্রতিক ভিডিওগুলি