কাজলের বিয়ের চমকে দেওয়া ছবি

মোট দেখেছে : 67
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

বিনোদন ডেস্কঃ ‘মহামারি আমাদের আনন্দের উজ্জ্বলতাকে ছায়া দিয়ে ঢেকে রেখেছে। তবু একসঙ্গে পথচলা শুরু করতে আর তর সইছে না। যাঁরা আমাকে এত বছর ভালোবেসেছেন, আমার মঙ্গল কামনা করেছেন, সবার কাছে আমি কৃতজ্ঞ। আপনাদের শুভকামনা প্রার্থনা করছি। আমি ভবিষ্যতেও আমার কাজটি করে যাব, অর্থাৎ ভক্তদের বিনোদন দিয়ে যাব। তবে এখন কেবল নতুন পথচলার দিকেই সব মনোযোগ।

খবরটি আমি আপনাদের জানাতে পেরে অসম্ভব রোমাঞ্চিত। ৩০ অক্টোবর মুম্বাইতে খুবই ছিমছাম পারিবারিক আয়োজনে গৌতম কিসলুর সঙ্গে আমার বিয়ে হচ্ছে। এই  আপনাদের সীমাহীন সমর্থনের জন্য আবার ধন্যবাদ।’ মাসের শুরুতে ইনস্টাগ্রাম পোস্টে অনেকটা এভাবেই নিজের বিয়ের আগাম খবর দিয়েছিলেন ভারতের ‘দক্ষিণী’ অভিনেত্রী কাজল আগারওয়াল। এমন মন্তব্যের এক চুল এদিক–সেদিক হয়নি। শুক্রবার ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা গৌতম কিসলুর সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়লেন অভিনেত্রী কাজল আগারওয়াল। বিয়ের দিন নতুন কনের সাজে ধরা দিলেন নায়িকা। মুম্বাইয়ের চার্চগেটের কাছে এক পাঁচতারা ভেন্যুতে বসেছে গৌতম-কাজলের দুই দিনব্যাপী বিয়ের আসর। রুপালি পর্দায় অনেকবার নববধূর সাজে সেজেছেন কাজল, তবে বাস্তবে কনের সাজে কেমন লাগবে নায়িকাকে? লিখলে বাড়াবাড়ি হবে না, এমন প্রশ্ন কয়েক দিন ধরেই ঘুরপাক খাচ্ছিল ভক্তদের ভাবনায়।  অবশেষে সেই প্রতীক্ষার অবসান হলো। নিজের ইনস্টাগ্রাম পোস্টেই ভক্তদের আশা পূর্ণ করলেন কাজল। করোনা আবহে কেবল কাছের বন্ধু ও পরিবারের উপস্থিতিতেই বিয়ে সারলেন কাজল। কনের সাজে নিজের ইনস্টাগ্রামে যে ছবি কাজল পোস্ট করেছেন, তা মুগ্ধ করছে। একটি ছবির কথা আলাদা করে না বললেই নয়। কাজলের অফিশিয়াল ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে এ ছবি সাদা-কালো, তবে এই একটি ছবিতে কনের চোখে এক দারুণ উজ্জ্বল দীপ্তি। গায়ে টাওয়াল জড়ানো। সাদা গোলাপে মোড়া চুল। হাতে শোভা পাচ্ছে মেহেদি।  মাথায় বিন্দি। ঠিক পেছনেই টাঙানো রয়েছে লেহেঙ্গা, সেটির ঝলকও ছবিতে স্পষ্ট। যেন অপেক্ষা করছে কাজলের জন্য। সাদা–কালো এ ছবির ক্যাপশনে কাজল লিখলেন- ‘ঝড়ের আগের প্রশান্তি’। হ্যাশট্যাগে এ ছবিরই রঙিন সংস্করণ মিলল। এর আগে গত বৃহস্পতিবার বসেছিল কাজলের গায়েহলুদের অনুষ্ঠান। গায়েহলুদের অনুষ্ঠানে ট্র্যাডিশন মেনে হলুদ সাবেকি পোশাক আর ফুলের সাজে সাজলেন হবু (তখন পর্যন্ত) কনে। সেদিনের বেশ কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পাওয়া গেছে। সেদিন উজ্জ্বল হলুদ রঙের চুড়িদার আর মানানসই ওড়নায় অনুষ্ঠানে দেখা গেছে কাজলকে।  সঙ্গে ছিল মুক্তার গয়না। আর মুক্তার টায়রাতেও গোলাপের উপস্থিতি, হাতে-গলায় ও কপালের ফ্লোরাল জুয়েলারিতেও ছিল সাদা মুক্তা ছড়ানো। সীমিত পরিসরে আয়োজন এবং নিজে বিয়ের কনে হলেও অনুষ্ঠানে যে একেবারেই হুল্লোড় করেননি কাজল, তা নয়। বরং মূল অনুষ্ঠান শুরুর আগে এক ফাঁকে বেশ জমিয়ে নেচেছেন তিনি। ভারতের ‘দক্ষিণী’ অভিনেত্রী কাজল আগারওয়ালকে বেশির ভাগ দেখা গেছে তামিল ও তেলেগু ছবিতে। তবে বলিউডেও বেশ কয়েকটি ছবিতে কাজ করেছেন তিনি। ২০০৪ সালে ‘কিউ হো গায়া না’ দিয়ে বলিউডে যাত্রা শুরু তাঁর। অজয় দেবগনের সঙ্গে ‘সিংঘাম’ ছবিতে অভিনয় করেছেন কাজল। এ ছাড়া ‘স্পেশাল ২৬’, ‘নায়ক’, ‘রণারঙ্গম’, ‘মগধীরার’ ছবিতে অভিনয় করেছেন। বিগত এক বছরের ক্যারিয়ারে বেশ চাঙা অবস্থানে রয়েছেন ভারতের জনপ্রিয় ‘দক্ষিণী’ অভিনেত্রী কাজল আগারওয়াল। এর ওপর করোনা মহামারির আগে সিঙ্গাপুরে মাদাম তুসো জাদুঘরে ঠাঁই পেয়েছে তাঁর মোমের মূর্তি। তিনিই প্রথম কোনো দক্ষিণ ভারতীয় অভিনেত্রী, যিনি এই জাদুঘরে স্থান পেলেন। সব মিলিয়ে সময়টাকে দারুণ উপভোগ করছেন তিনি।

সূত্রঃ প্রথম আলো

আরো দেখুন

সাম্প্রতিক ভিডিওগুলি