১৬ মিনিটের হ্যাটট্রিকে রাশফোর্ডের রেকর্ড

মোট দেখেছে : 59
প্রসারিত করো ছোট করা পরবর্তীতে পড়ুন ছাপা

নিউজ ডেস্কঃ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ইতিহাসে মাত্র একজন খেলোয়াড়েরই বদলি হিসেবে নেমে হ্যাটট্রিক ছিল। সেই খেলোয়াড়ের নাম উলে গুনার সুলশার। ১৯৯৯ সালে প্রিমিয়ার লিগে নটিংহাম ফরেস্টের বিপক্ষে কীর্তিটি গড়েছিলেন নরওয়েজিয়ান ফুটবলার।

সময়ের পরিক্রমায় সেই সুলশার এখন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কোচ। আর কাল রাতে ডাগআউটে বসেই সুলশার দেখলেন দুর্লভ সেই কীর্তির পুনরাবৃত্তি। গুরুকে সাক্ষী রেখেই রেড বুল লাইপজিগের বিপক্ষে বদলি হিসেবে নেমে হ্যাটট্রিক করেছেন মার্কাস রাশফোর্ড। ম্যাচের ৬৩ মিনিটে মাঠে নেমেছিলেন তিনি।


উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে লাইপজিগকে ৫-০ গোলে হারিয়েছে ইউনাইটেড। রাশফোর্ড ছাড়াও গোল পেয়েছেন ম্যাসন গ্রিনউড ও আন্থনি মার্শিয়াল। ২ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে এইচ গ্রুপে সবার ওপরে সুলশারের ইউনাইটেড। ৩ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে কাল ইস্তাম্বুল বাশাকশেহিরকে ২-০ গোলে হারানো পিএসজি। লাইপজিগের পয়েন্টও ৩, তবে জার্মান ক্লাবটি পিছিয়ে গোল ব্যবধানে। ইউনাইটেডের একটাই আক্ষেপ—মাঠে বসে ভক্তরা সাক্ষী হতে পারলেন না এমন পারফরম্যান্সের। ওল্ড ট্রাফোর্ডের কালকে ম্যাচটি দর্শকের সামনে খেলতে চেয়েছিল ইউনাইটেড। সামাজিক দূরত্বের বিধি মেনে ২৩,৫০০ দর্শককে খেলার দেখার ব্যবস্থা করেছিল ইউনাইটেড। ব্রিটিশ সরকার শেষ পর্যন্ত অনুমতি দেয়নি। 


গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে সেমিফাইনাল খেলা লাইপজিগের বিপক্ষে ২১ মিনিটে এগিয়ে যায় ইউনাইটেড। পল পগবার ডিফেন্সচেরা পাস থেকে গোল করেন গ্রিনউড। চ্যাম্পিয়নস লিগে ১৯ বছর বয়সী ফরোয়ার্ডের এটিই প্রথম গোল।


 মাঠে নামার ১১ মিনিট পর প্রথম গোলটি পেয়েছেন রাশফোর্ড। ঠান্ডা মাথায় প্রথম গোলটি করার ৪ মিনিট পর দ্বিতীয় গোলটি পেয়ে যান ২২ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড। রাশফোর্ড তৃতীয় গোলটি পেয়েছেন যোগ করা সময়ে। এর আগে ৮৭ মিনিটে পেনাল্টি থেকে ইউনাইটেড চতুর্থ গোলটি এনে দেন মার্শিয়াল। ২৭ মিনিট খেলেছেন, নির্দিষ্ট করে বললে, ১৬ মিনিটে করেছেন হ্যাটট্রিক। রাশফোর্ড কাল চ্যাম্পিয়নস লিগে রেকর্ডও গড়েছেন। চ্যাম্পিয়নস লিগে এক ম্যাচে এত কম সময় খেলে হ্যাটট্রিক নেই আর কারও। ইংলিশ ফরোয়ার্ড পেছনে ফেলেছেন কিলিয়ান এমবাপ্পেকে। গত মৌসুমে বেলজিয়ামের ব্রুগার বিপক্ষে হ্যাটট্রিক পাওয়ার ম্যাচে মাত্র ৩৮ মিনিট মাঠে ছিলেন পিএসজি ফরোয়ার্ড। ম্যাচ শেষে সুলশার বললেন তিনি রাশফোর্ডের কাছ থেকে এমন পারফরম্যান্সই প্রত্যাশা করেছেন, ‘মার্কাস রাশফোর্ড এল ও ভালো করল। মঞ্চটা অবশ্য প্রস্ততই ছিল। বদলি খেলোয়াড়ের কাছ থেকে এমন পারফরম্যান্সই সবাই আশা করে।’


গত সপ্তাহে পিএসজির বিপক্ষে ইউনাইটেডের জয়ের নায়ক রাশফোর্ডকে বেঞ্চে রেখে ম্যাচ শুরুর আগেই চমকে দিয়েছিলেন সুলশার। শুধু রাশফোর্ডই কেন, পর্তুগিজ তারকা ব্রুনো ফার্নান্দেজকেও প্রথম একাদশে রাখেননি সুলশার।


 হ্যাটট্রিকের পর রাশফোর্ড বললেন কোচের কথা মেনেই সফল তিনি, ‘ম্যানেজার আমাকে গতিটা ধরে রাখতে বলেছিলেন, যার মানে হলো আক্রমণ চালিয়ে যাওয়া। আমরা সব সময়ই বিপজ্জনক ছিলাম। আর যখনই আমরা আক্রমণে গেছি প্রতিবারই গোল করার সুযোগ ছিল’।


আক্রমণাত্মক খেলেই লাইপজিগে চ্যাম্পিয়নস লিগে সবচেয়ে বড় হার উপহার দিল ইউনাইটেড। বুন্দেসলিগায় পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থাকা লাইপজিগ মৌসুমে প্রথম হারের স্বাদও পেয়ে গেল তাতে।


 ম্যাচশেষে স্তম্ভিত লাইপজিগ কোচ ইউলিয়ান নাগেলসমান বললেন শেষ ২০ মিনিটই শেষ করে দিয়েছে তাঁদের, ‘এটা (স্কোর) একটু ভুতুড়ে হয়ে গেল, ওরা প্রথম গোল দেওয়ার পর আমরা ভালোই খেলছিলাম। শেষ ২০ মিনিট অবশ্য জঘন্য ছিল।’

সূত্রঃ প্রথম আলো

আরো দেখুন

সাম্প্রতিক ভিডিওগুলি